পিয়াজেঁর জ্ঞানমূলক বিকাশের তত্ত্ব | Piaget’s Theory of Cognitive Development

পিয়াজেঁর জ্ঞানমূলক বিকাশের তত্ত্ব | Piaget’s Theory of Cognitive Development

উত্তর:

পিয়াজেঁর জ্ঞানমূলক বিকাশের তত্ত্ব (Piaget’s Theory of Cognitive Development) :

• প্রক্ষাত মনোস্তত্ত্ববীদ Jean Piaget 1996 খ্রীঃ সুইজারল্যান্ডে জন্ম গ্রহন করেন।

• প্রজ্ঞা/জ্ঞানমূলক বিকাশের ক্ষেত্রে তার অবদান অবিস্বরনীয়।

• পিয়াজেঁ মূলত একজন জৈব বিশারদ ছিলেন।

• তিনি নিজেকে Generic Epistemologist হিসেবে মনে করতেন।

• ব্যক্তির বিকাশের সঙ্গে প্রজ্ঞার বিকাশের সম্পর্ক অনুসন্ধান যাঁরা আগ্রহ প্রকাশ করেন তাঁদেরকে Generic Epistemologist বলা হয়।

• স্কিমা (Schema)

স্কিমা হল কোন মুহুর্তে অর্জিত তথ্য সমুহের একক সংগঠন। জন্মের পরমুহুর্তে শিশু যখন নতুন তথ্য আয়ত্ব করে তার স্কিমা সম্প্রসারিত হতে থাকে। এই ভাবে সমগ্র জীবনব্যাপী স্কিমা সম্প্রসারিত হতে থাকে।

পিয়াজেঁর মতে, ব্যক্তির প্রজ্ঞামূলক ক্রমবিকাশের বিভিন্ন স্তরে যে চারটি প্রক্রিয়া প্রভাব বিস্তার করে, তা হল- পরিনমন, অভিজ্ঞতা, সামাজিক মিথষ্ক্রিয়া এবং ভারসাম্য।

পিয়াজেঁর জ্ঞানমূলক বিকাশের স্তর :

পিয়াজেঁ জ্ঞানমূলক বিকাশের চারটি স্তরের কথা বলেছেন- 

1. Sensori Motor Stage (সংবেদন-সঞ্চালনের স্তর) :

এই স্তরের সময় কাল জন্ম থেকে ২ বছর পর্যন্ত। এই স্তরে শিশুরা অঙ্গ সঞ্চালন ও ইন্দ্রিয়ের দ্বারা পরিবেশের সঙ্গে প্রতিক্রিয়া করে। তাই এই স্তরকে সংবেদন সঞ্চালন মূলক স্তর বলা হয়।

বৈশিষ্ট্য :

i. এই স্তরে শিশুর চিন্তামূলক স্তর সংবেদন সঞ্চালন মূলক ক্রিয়ার মধ্যেই সিমাবদ্ধ থাকে। 

ii. প্রাথমিক ভাবে শিশু অত্যন্ত আত্মকেন্দ্রীক থাকে।

iii. এই স্তরে বস্তুর স্থায়িত্ব সম্পর্কে শিশুর কোনো বোধ থাকেনা। বস্তু সম্পর্কে অভিজ্ঞতা শিশুর একান্তই নিজস্ব।

iv. কোনো বস্তু শিশুর দৃষ্টি সীমার মধ্যে আছে কিনা সে বিষয়ে শিশুর সুস্পষ্ট ধারনার অভাব দেখা যায়।

v. সামাজিক পরিবেশে নিজেদের অবস্থান সম্পর্কে তাদের কোনো ধারনা থাকেনা।

vi. এই স্তরে শেষের দিকে শিশুরা বস্তুর আকৃতি, বর্ণ ইত্যাদি বৈশিষ্ট্যের সাহায্যে একটিকে অপরটি থেকে পৃথক করতে পারে।

vii. এই স্তরে শেষের দিকে শিশু পুনরাবৃত্তি, পৃথকীকরন, সামান্যি করন ইত্যাদির মাধ্যমে নতুন পরিবেশ ও পরিস্থিতির সঙ্গে অভিযোজন করতে পারে।

2. Pre-Operational Stage (প্রাক্ সক্রিয়তা মূলক স্তর) :

এই স্তরের সময় কাল ২ থেকে ৭ বছর। পিয়াজেঁ এই স্তরকে আরো দুটি উপভাগে ভাগ করেছেন-

ক) প্রাক্-ধারনা মূলক স্তর : এই স্তরের সময় কাল ২ থেকে ৪ বছর পর্যন্ত। 

বৈশিষ্ট্য:-

i. এই স্তরে শিশুর সংবেদন মূলক ক্রিয়া গুলি কতক গুলি সংকেতের সাহায্যে প্রকাশ করে। 

ii. এই স্তরের শিশু অনুকরন মূলক আচরন পূর্বের কোনো প্রতিক্রিয়াকে বর্তমান পরিস্তিতিতে ব্যাবহার করতে শেখে।

iii. এই স্তরে সংকেতিক চিন্তনের ফলে শিশুর ভাষা ব্যবহারের ক্ষমতা দ্রুত লাভ করে।

iv. এই স্তরে শিশুর স্থান ও সময় সম্পর্কিত ধারনা খুব স্পষ্ট হয় না।

v. শিশু তার নিজের কিছু কাজের মধ্যে ধারা বাহিকতা বজায় রাখতে পারে।

vi. এই স্তরে শিশু নিজের জগৎ ছাড়াও বহিজগতের অস্তিত্ব বুঝতে পারে।

খ) স্বজ্ঞামূলক চিন্তনের স্তর : এই স্তরের সময় কাল ৪ থেকে ৭ বছর পর্যন্ত। 

বৈশিষ্ট্য:-

i. এই স্তরে শিশুর সক্রিয় বাস্তব ধর্মী চিন্তনের বিকাশ হয়ে থাকে।

ii. শিশুর ভাষার মধ্যে সামাজিক মিথষ্ক্রিয়া করে।

iii. শিশুর ধারনা গুলিকে নির্দিষ্ট ক্রমে সাজাতে পারে।

iv. শিশুর ভাষা প্রয়োগের দক্ষতা বৃদ্ধি পায়।

v. শিশু সামাজিক প্রতিক্রিয়ার দ্বারা মানসিক কল্প গুলির পূর্ন বিন্যাস ঘটায়।

vi. শিশুর চিন্তন প্রক্রিয়া ও যুক্তি শক্তির নির্ভরশীলতা বাড়ে।

vii. এই স্তরের শেষে শিশুর মানসিক কল্প ও ক্রিয়া গুলির মধ্যে সমন্বয় ঘটে, যা তাকে পূর্ণতার দিকে এগিয়ে নিয়ে যায়।

3. Concrete Operational Stage (মূর্ত-সক্রিয়তার স্তর) :

এই স্তরের সময় কাল ৭ থেকে ১৪ বছর পর্যন্ত। এই স্তরে চিন্তনের মূল ভিত্তি হল ধারনা। যা শিশুরা স্বজ্ঞামূলক চিন্তনের স্তরে গঠন করে। এই ধারনা গুলিকে পিয়াজেঁ বলেছেন অপারেশান (Operation) এগুলি এমন কতকগুলি মানসিক প্রতিক্রিয়া যা শিশুরা আত্মীকরনের মাধ্যমে নিজেদের অঙ্গিভূত করে। 

বৈশিষ্ট্য:-

i. এই স্তরে শিশু যুক্তিপূর্ণ চিন্তা দ্বারা সিদ্ধান্ত গ্রহন করতে পারে।

ii. শিশু বাস্তব কোনো উদাহরন পেলে তা থেকে অভিসারি চিন্তন বিচ্ছুরিত হতে পারে। 

iii. এই স্তরে শিশু বাস্তবধর্মী ও অভিজ্ঞতা কেন্দ্রিক বিভিন্ন অপারেশন করে, যেমন- 

ক) শ্রেনী : শ্রেনী করনের অপারেশান দ্বারা শিশু সাদৃশ্যের ভিত্তিতে বিভিন্ন বস্তুকে দলে ভাগ করতে পারে। এই জাতীয় অপারেশন শিশুর চিন্তার সমন্বয় সাধন করে।

খ) সম্পর্ক : এই অপারেশন দ্বারা শিশু বিভিন্ন বস্তুকে নির্দিষ্ট ক্রমে সাজাতে পারে, এবং পার্থক্যের ভিত্তিতে বিভিন্ন বস্তুর মধ্যে সম্পর্ক স্থাপন করতে পারে।

গ) সংখ্যা : শ্রেনী এবং সম্পর্ক এই দুই অপারেশনের ভিত্তিতে সংখ্যা ধারনা… শিশুর মধ্যে তৈরি হয়।

iv. পিয়াজেঁর মতে কাজের মধ্য দিয়ে শিক্ষা এই স্তরের মূল নীতি। পিয়াজেঁ বলেছেন এই স্তরে অপারেশন সমন্নয়ের স্থায়ীত্ব নির্ভর করে পাঁচটি মৌলিক ধর্মের উপর এগুলি হল- ক) বাধ্যতা খ) বৈপরিত্য গ) সংযুক্তী ঘ) অভেদ ঙ) পারস্পরিক ক্রিয়া।

v. এই স্তরে শিশুর পর্যবেক্ষন ও পরিক্ষনের ক্ষমতা বৃদ্ধি পায়।

4. Formal Operational Stage (যৌতিক সক্রিয়তার স্তর) : 

এই স্তরটি হল কৈশোর কাল ফলে শিশুর মন ও চিন্তন সুসংঘবদ্ধ সক্রিয়তায় রুপান্তরিত হয়।

i. এই স্তরের শিশু যে কোনো কাজের সমগ্র সম্ভাবতায় গ্রহন করে, প্রকল্প গঠন করে, পরীক্ষা করে, বিশ্লেষন করে, সিদ্ধান্ত গ্রহন করে এবং প্রয়োজনে তা গ্রহন বা বর্জন করে।

ii. এই স্তরে শিশুর মনে যে যুক্তি গ্রাহ্যতা জন্ম নেয়, তার মূল কারন তার মনের মধ্যে কী, কিন্তু, কেন এর মতো প্রশ্ন জাগে তাই সে বস্তু ভিত্তিক চিন্তার বাইরে ও বিমুর্ত ভাবনার আশ্রয় নেয়। 

iii. এই স্তরে সে যৌথ পরিকল্পনার সংমিশ্রনে সাধারনি করন করতে পারে। পিয়াজেঁ এই অপারেশনকে বলেছেন দলগত অপারেশন। এর নাম দিয়েছেন IN.R.C – Group

I= Idendity (সাদৃশ্য)

N= Negative (ঋণাত্বক)

R= Reciprocity (বিনিময়)

C= Correlativity (সহজাত)

যে কোনো কল্পকে পরীক্ষা করার জন্য এবং সিদ্ধান্তে উপনিত হওয়ার জন্য এই অপারেশন গুলি প্রয়োজন।

শিক্ষায় এই তত্ত্বের গুরুত্ব :

পিয়াজেঁর ঞ্জান মূলক বিকাশের এই যুগান্তর কারি তত্ত্ব পঠন ও শিখনের ক্ষেত্রে এক নতুন জোয়ার এনে দিয়েছে, এই তত্ত্বে তার উল্লেখ যোগ্য অবদান হল-

i. পিয়াজেঁ শিশুকে পরিপূর্ন জ্ঞানের আধার বলেছেন এবং শিশুকে একই সঙ্গে দার্শনিক ও

বৈঞ্জানিক হিসেবে বিবেচনা করেছেন।

ii. শিশুর নিজের আত্ম-প্রচেষ্টা পরিবেশ থেকে যে অভিঞ্জতা অর্জন করে তাই তার ঞ্জান মূলক বিকাশে সহায়তা করে৷

iii. পিয়াজেঁ শিশুর জীবন বিকাশ সম্পর্কে মনোবিজ্ঞানীদের দৃষ্টি ভঙ্গির পরিবর্তন ঘটিয়েছে। iv. পিয়াজেঁ শিশুকে অনিয়ন্ত্রিত পরিস্থিতিতে পর্যবেক্ষন করে বেশির ভাগ তথ্য সংগ্রহ করেছেন এবং তাঁর তত্ত্ব প্রতিষ্ঠিত করেছেন। মানসিক প্রতিক্রিয়া গুলি অনুশীলন করা যায় একথা তিনি প্রমান করেন।

v. পিয়াজেঁ শিক্ষা মনোবিজ্ঞানের জীবন বিকাশ অনুশীলন পদ্ধতির মধ্য প্রথম পরিবর্তন

করেন।

vi. তিনি আধুনিক শিক্ষা মনোবিজ্ঞানে চিকিৎসা মূলক সাক্ষাৎকার পদ্ধতির প্রবর্তন করেন। 

vi. তিনি আধুনিক শিক্ষন হিসাবে যুক্তি নির্ভর গাণিতিক কৌশলের প্রবর্তন করেন।

আরো পড়ুন

স্কিনার বক্স কি | What is Skinner Box

কোহলবার্গের নৈতিক বিকাশের তত্ত্ব | Kohlberg’s Moral Development Theory in Bengali

অধিবিদ্যা কি | এরিস্টটলের অধিবিদ্যা | দার্শনিক আলোচনায় অধিবিদ্যা | Metaphysics in Bengali

প্রাথমিক শিক্ষার লক্ষ্য ও পাঠক্রম সম্পর্কে কোঠারি কমিশনের সুপারিশ

শিক্ষার পরিধি গুলি আলোচনা করো

শিশুকেন্দ্রিক শিক্ষার গুরুত্ব সম্পর্কে আলোচনা করো

শিক্ষা কি | শিক্ষার ধরন | শিক্ষার বুৎপত্তিগত অর্থ | শিক্ষা সম্পর্কে শিক্ষাবিদ ও দার্শনিকদের অভিমত

Leave a Comment

error: Content is protected !!